৪১.
ভবন হয়েছে ন্যাড়া কাঠামো ভেঙেছে কাচের দেয়াল
মৃত্যু যেখানে যাবেই সেখানে থাকবে না তো খেয়াল

৪২.
হাসপাতালে কাতরায় অসুস্থজনে অক্সিজেন চায় সবার
মানুষ বড়ো অসহায় ডেল্টা ভেরিয়েন্ট চলছে করোনার

৪৩.
করোনা কালেও খেদ নেই মনে করছে নারী-শিশু পাচার
মনেতে নাই ভয় আল্লার; ওদিকে কাঁপছে আরশ খোদার

৪৪.
কাছেতে নাই নটবর আছে শুধু পুষ্পমালা মনোহরে
শুকনো ফুল এদিক-ওদিক বিরহী হিয়ার ছিন্নবাসরে

৪৫.
নির্মল আকাশ নিঃশব্দ ছড়ায় জোছনা রেশম হাসি
তাঁকে পাবো সেই আশাতেই যে নিরব বসে আছি

৪৬.
জলন্ত অঙ্গারে পুড়ছে প্রাসাদ পুড়ছে সবুজ অরণ্য
দূর্লভ রক্তিম অর্কিডে সেজে পুড়ছি তোমার জন্য

৪৭.
সামনে আছে ঐ পাথুরে দুয়ার আগুন পাপড়ি মাটি
মাতাল ঢেউয়ের কানাকানি তবু প্রণয় হেমবর্ণ খাঁটি

৪৮.
কিছুটা সময় দাঁড়াও মন পার্থিব ক্রিয়া ভুলে
উন্মিলিত পুষ্পনৈবেদ্য দু’হাতে দেবো তুলে

৪৯.
পূণ্য তীর্থ সে, তাঁর কাছে হয় নি যাওয়া আমার
আজও তাঁর দেবালয়ে জ্বলে শত-প্রদীপ আশার

৫০
তাঁরই জন্য গাঁথি গীতিহার গাঁথি স্বর্ণকুসুম মালা
তিনিই আমায় দিবেন ভুলিয়ে লক্ষহাজার জ্বালা