স্বার্থবাজ শহর

আমি হারিয়ে যাবো!
এই স্বার্থবাজ,
অন্ধকার শহর থেকে।

আমি বুঝে গেছি,
এ শহরে আমার মূল্য,
গুরুত্ব, প্রয়োজন, কতখানি!

আমি চলে যাবো অনেক দূরে
যতটুকু দূরে গেলে খুজে পাবো,
স্বার্থহীন, আলোকিত শহরটাকে!

আমি খুঁজবো শত সহস্র দিন
সেই আলোকিত শহর টাকে!

আমি সেই শহরে
খুঁজব আমার প্রিয়জন,
যদিও সে আমায় ভাবে
শুধুমাত্র প্রয়োজন!!!

আমি খুজে নিবো
আমার জীবন সঙ্গী কে,
যেন সে সারাজীবন,
আমারই পাশে থাকে,
আমারেই পাশে রাখে!!!
…………………………………………..

কবিতা আমার বন্ধু

কবিতা তুমি আমার হয়ে গেছো পরম বন্ধু
দিয়েছো আমায় আরও কত নতুন বন্ধু।
শিখতে পারছি আমি কত কিছু তাদের কাছ থেকে।
সমৃদ্ধ হচ্ছি আমি শব্দ ভান্ডারে।
সঙ্গি হয়েছো আমার একাকীত্বে।
দুঃখ বেদনা চলে গেছে জীবন থেকে।
যখন দেখি তোমায় ভালো বাসছে সকলে
মনটা ভরে যায় আনন্দে।
হিংসে হয় না আমার তোমায়
ভালো বাসছে বলে সকলে
কারণ তুমি আমার পরম বন্ধু
হয়ে গেছো অনেক আগে।
…………………………………………..

সাদা মনে কাদা জমালে

কি আর হবে বল
প্রিয় আমার সাদা মনে
কাদা জমালে,

আমার সুন্দর সেই
দুচোখ দিয়ে পানি জরছে
অজরে নিরবে,
দুচোখে নিচে কালো দাগ
পডে আছে,

সাদা মনে কাদা জমালে

তোমার জন্য রাত জেগে,
জেগে, কেদে কেদে

নীল আকাশ টা আজ
তুমি
হঠাত মেঘলা করে দিলে
কি দোষের অপরাধী বানিয়ে দিলে
অপরাধ টা কি বলে যেও,প্রিয়

আমি দাডিয়ে থাকবো
প্রতি দিন সে ই রাস্তার মোরে
যে খান দিয়ে যাবে তুমি,
আমি বসে আছি,
…………………………………………..

আমার ভালোবাসা

রিয়া মনি তুমি হেসো,
আমিও মুগ্ধ হবো

মনি তুমি আড় চোখে তাকিও
আমি মুগ্ধ হবো

মনি তুমি শুধু বাতাসে চুলগুলো উড়িয়ে দিও
আমি অবাক চোখে তাকিয়ে রবো!

আহা! এত সুন্দর হয় ইসরাত জাহান রিয়া নামে মেয়ে গুলা !

মনি তুমি বৃষ্টিপানে একদৃষ্টিতে চেয়ে থেকো
আমি অপরপ্রান্ত হতে
তোমাতে চেয়ে রবো!

মনি তুমি বৃষ্টিতে বিজে একা একা
রাস্তায় যাওয়া পথে
আমি তোমার সঙ্গী হবো।

মনি তুমি লাল চুড়ি পরে এসো,
তুমি লাল জামা পডে এসো,
পায়ে নুপুর পডে এসো,
আমি বুঝে নিবো তুমিও ভালোবাসো!

নয়তো,
আমাকে ভালোবাসতে হবে’না!
মনি তুমি লাল জামা, নীল চুডি পরে এসো!
আমি তোমাকে ভালোবেসে যাবো…

সুন্দর থেকো রিয়া মনি !
সৌন্দর্য্য ধরে রেখো………
…………………………………………..

মা তুমি ছাড়া পৃথিবীতে

মাগো এতদিন তোমার ছেয়েও
যাকে ভেসেছি ভালো,
সে মোরে অল্পে কষ্ট দিলো

মাগো তুমি ছাড়া
এপৃথিবীতে আপন আর কেহ না,

মাগো শত হাজার হাজার কোটি কোটি
কষ্ট দেওয়ার পরেও মোরে কোনো দিন
দূরে সরে যাও নাই, তবুও শত হাজার কোটি কষ্টের
মাঝেও মোরে আজও এত ভালোবাসো,,,

মাগো ওরা কি মানুষ নাকি
অমানুষ, তাদের কে তোমার দেওয়া
শিক্ষা থেকে পাওয়া ভালোবাসা
দিলাম ওরা মোরে কষ্ট দিলো,

মাগো আজ বুঝলাম
তুমি ছাড়া এ সার্থবাজ শহরে
আপন আর কেহ না
…………………………………………..

জীবন্ত লাশ বোবা কান্না

চার দিকে ছোট ছোট ছোট করে
টিপ টিপ টিপ করে পানি পড়ছে
কোনো শব্দ কোনো আওয়াজ
নেই বোবা হয়ে
নেইতো তো কোনো কাখ পংকি
আমি নিসত্ব হয়ে একাকীত্ব হয়ে
বসে আছি সেই গাস ফুলের উপর
আমার মনে হয়
পুরো শহরটা তে
বৃষ্টি হবে আকাশের নয়
জীবন্ত লাশ গুলোর চোখে
লাশ গুলোর দুচোখ বৃষ্টি”র পানির
বিজে রয় বৃষ্টি “র পানি নয়
চোখের পানি
কেহ বুঝে না
আবার না বুঝার বান
করে………….
…………………………………………..

সাদা মন

সাদা মন অতি সরল
কালো মন জটিল হয়
কার :- মনে যে কি রঙ আছে
বোঝা যায় বড়ই কঠিন ।
মুখটা দেখে বুঝবে নাকি তুমি ?
মুখে সবই লেখা থাকে নাকি
সবার মুখই ভিন্ন- রকম
মুখোশ দিয়ে ঢাকা ।
চোখের জল গুলা সত্যি বলে ?
সত্যি চোখের ভাষা –
সে সব এখন মেকি ভীষণ
মেকি ভালোবাসা বলা হয় ।
এসব দেখে কি বুকটা কাঁপে
মনের মধ্যে ভয় আছে বলে
প্রতিদিন করে চলেছি সবাই
নিখুঁত অভিনয় ।।
…………………………………………..

একমুঠো কাগজ

জানি এখন আর লিখতে পারো না।
মুঠো মুঠো কাগজ ছড়িয়ে আছে
ঘরের কোনে।

এখন আর ভোরের শিশিরে
ভেজে না পা,
জাগে না আলোড়ন
মিষ্টি শিহরণে।

বৃষ্টিরা এসে ফিরে যায়
তোমার জানালাও
তাদের ছুঁতে দেয় না।

চাঁদের আলোয় কেবলই
দেখো নিজের ছায়া।
রাতের নক্ষত্রেরাও দেখায় ভুল পথ।
…………………………………………..

কিনবো তোমায়

ভাবছি তোমায় কিনে নিবো
তাও আবার চড়া দামে।
বছর খানেক পরে যদি
দাম না কমে!

এখনো তোমায় কমে কিনবো না
এলাহি কান্ডে দাম চুকাবো
তুমি কি আর যেনো তেনো কেউ
দরকারে আমি নিঃস্ব হবো।

এক আষাঢ় বৃষ্টি যদি দেই?
কিংবা এক মগ শিশির?
চলবে? নাকি আরো কিছু চাও?
ধরো,আলো হলাম তোমার নিশির।
কি ভাবছো? কিনবো কেন?

জ্বর হয় তোমার, খুকিয়ে কাসো
ওসব আমার পোসায় না।
তার চেয়ে বরং কিনে রেখে দি
বড় বাজেটে ফোনের বিল আর কুলায় না।

এবার বলো নিজেকে বেঁচছো কবে?
নাকি আবার দাম বাড়াবে?
তাহলে বাপু কিনবো না ছাই
এমনে করেই ভালবেসে যাই।