আশরাফ আলী চারু Ashraf Ali Charu কবি ও কথাসাহিত্যিক। ১৯৮২ সালে ১০ ফেব্রুয়ারি শেরপুর জেলার শ্রীবরদী উপজেলার ৭নং ভেলুয়া ইউনিয়নের ঐতিহ্যবাহি কাউনের চর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ২০০৩ সালে কামিল স্নাতকোত্তর, ২০০৫ সালে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় হতে এমএসএস (রাষ্ট্রবিজ্ঞান) স্নাতকোত্তর ও ২০১৬ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে পিটিআই নেত্রকোনা হতে ডিপ্লমা ইন প্রাইমারী এডুকেশন ডিগ্রী অর্জণ করেন। তিনি পেশায় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক।

আশরাফ আলী চারু নব্বইয়ের দশক হতে ছড়া ও কবিতা লেখার মাধ্যমে সাহিত্য জগতে প্রবেশ করেন । পরে তার সাহিত্য চর্চার ব্যাপ্তি আরো বিস্তৃত হয়ে গান, নাটক, গল্প, প্রবন্ধ এবং উপন্যাস।

আশরাফ আলী চারুর ১৯৯৯ সালে তাঁর প্রথম কাব্যগ্রন্থ ‘কাজল চোখের কান্না’ স্থানীয় ভাবে প্রকাশ হয়। ২০১৮ সালের অমর ২১শে বইমেলায় “স্বপ্ন পশরা” কাব্যগ্রন্থ ও “টুনটুনির পাঠশালা” শিশু কিশোর গল্পগ্রন্থ প্রকাশ হয় এবং একই সালে “টুনটুনির পাঠশালা” গল্পগ্রন্থটি অসমীয়া ভাষায় অনূদিত হয়। ২০১৯ সালের অমর একুশে বইমেলায় উপন্যাস “নির্বাক জননী” প্রকাশ হয়। ২০২০ সালে অমর একুশে বইমেলায় ‘লালপুঁটি ব্যাঙমাসি’ শিশুকিশোর গল্পগ্রন্থ ও অন্যটি ‘মুখোশের মুখোশ’ নামে কাব্যগ্রন্থ এবং সেপ্টেম্বর মাসে প্রকাশ হয় ‘ছড়ার দেশে পাখির বেশে’ ছড়াগ্রন্থ। তাঁর সম্পাদনায় প্রকাশ হয় ‘অরুণিমা’ সাহিত্যপত্র (পিটি আই নেত্রকোনা- ২০১৫-১৬ শিক্ষা বর্ষ), ‘মাধবী’ সাহিত্যপত্র (২০০৩)।

আশরাফ আলী চারু বাংলা সাহিত্যে অবদানের জন্য ১৩তম বাঙ্গলা সাহিত্য সম্মেলনে ‘কবি জসীম উদ্দীন কবিতা পদক”এ ভূষিত হোন। ২০১৯ সালে উপন্যাস ‘নির্বাক জননী’র জন্য সোনার বাংলা সাহিত্য পরিষদ ঢাকা কর্তৃক ‘বীর মুক্তিযোদ্ধা ছায়েদুল ইসলাম গ্রন্থ স্মারক সম্মাননা লাভ করেন। তিনি আলোকিত শ্রীবরদী, আওয়ার শেরপুর সহ বিভিন্ন সামাজিক সাহিত্য সংগঠন হতে বিভিন্ন সম্মাননায় ভূষিত হয়েছেন।

লেখকের সাথে যোগাযোগ ৫৭/১ কসবা মোল্লা পাড়া, শেরপুর টাউন, শেরপুর -২১০০, জেলা-শেরপুর। মোবাইল: ০১৯১৫১৬০০৫১, ফেসবুক : Ashraf Ali Charu