আসাদ বিন হাফিজ Asad bin hafiz কবি, প্রাবন্ধিক, কথাসাহিত্যিক, অনুবাদক, সংগঠক ও প্রকাশক। ১৯৫৮ সালের ১ জানুয়ারি গাজীপুর জেলার কালীগঞ্জ থানার অন্তর্গত বড়গাও গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। বাবা মুহাম্মদ হাফিজউদ্দীন মুন্সী এবং মা জুলেখা বেগম। দশ ভাইবোনের মধ্যে সবার ছোট। তার স্ত্রী কামরুন নেছা মাকসুদা একজন সাংবাদিক। সন্তান ১. আহমদ শাওকী, ২. নুসাইবা ইয়াসমীন, ৩. আহমদ শামিল। তিনি ফরিদাবাদ হাইস্কুলে থেকে ১৯৭৪ সালে এসএসসি; ঢাকা কলেজ থেকে ১৯৭৬ সালে এইচ এস সি; ১৯৮০ সালে স্নাতক (সম্মান) এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ১৯৮৩ সালে মাস্টার্স বাংলাসাহিত্য পাশ করেন। পেশাগত জীবন শুরু করেন অধ্যাপনা দিয়ে। তারপর সাংবাদিকতা ও প্রকাশনা ব্যবসা। বর্তমানে ঢাকায় বসবাস করছেন।

আসাদ বিন হাফিজ ভারত, সৌদী আরব, মালয়েশিয়া ভ্রমণ করেন। শখ ঘুরে বেড়ানো, বাগান করা। ছড়া, কবিতা, গল্প, প্রবন্ধ, জীবনী, শিশুসাহিত্য, অনুবাদ করেন।

আসাদ বিন হাফিজ’র প্রকাশিত কবিতার বই: ১. কি দেখো দাঁড়িয়ে একা সুহাসিনী ভোর (১৯৯০), প্রীতি প্রকাশন। ২. অনিবার্য বিপ্লবের ইশতেহার (১৯৯৬), প্রীতি প্রকাশন। শিশুতোষ ছড়া কবিতার বই: ৩. হরফ নিয়ে ছড়া (১৯৮৯), প্রীতি প্রকাশন। ৪. মজার ছড়া বাংলা পড়া (২০০৫), প্রীতি প্রকাশন। ৫. মজার ছড়া আরবী পড়া (২০০৫), প্রীতি প্রকাশন। ৬. মজার পড়া A. B. C. D (2005), প্রীতি প্রকাশন। ৭. বাংলাপড়া-৪ (১৯৯৩), ইসলামিক এডুকেশন সোসাইটি। ৮. বাংলাপড়া-৫ (১০ম সং ২০০৬), ইসলামিক এডুকেশন সোসাইটি। ৯. বাংলা লিখি বাংলা শিখি (২০১৮), বাংলাদেশ কোঅপারেটিভ বুক সোসাইটি। ১০. আলোর হাসি ফুলের গান (১৯৯০), প্রীতি প্রকাশন। ১১. কুক কু রুকু (১৯৯২), প্রীতি প্রকাশন। ১২. আল্লাহ মহান (২০০১), প্রীতি প্রকাশন। ১৩. কারবালা কাহিনী (২০০১), প্রীতি প্রকাশন। ১৪. বৃষ্টি পড়ে টাপুর টুপুর (২০২১), দেশজ প্রকাশন। শিশু কিশোর গল্পের বই: ১৫. ইয়াগো মিয়াগো (১৯৯৪), প্রীতি প্রকাশন। ১৬. ছোটদের মজার গল্প (২০১৫), বাংলাদেশ কোঅপারেটিভ বুক সোসাইটি। ১৭. জ্বিনের সঙ্গে বসবাস (২০১৮), বাংলাদেশ কোঅপারেটিভ বুক সোসাইটি। ১৮. ভীন গ্রহের বন্ধু (২০০৬), আধুনিক প্রকাশনী। কাব্যানুবাদ: ১৯. নাতিয়াতুন নবী (২০০৩), প্রীতি প্রকাশন। ছড়ার বই: ২০. হিরালালের ছড়া (২০০৩), প্রীতি প্রকাশন। গবেষণার বই: ২১. আল-কুরআনের বিষয় অভিধান (১৯৯২), প্রীতি প্রকাশন। ২২. ইসলামী সংস্কৃতি (১৯৯৪), প্রীতি প্রকাশন। ২৩. ছন্দের আসর (১৯৯৮), প্রীতি প্রকাশন। ২৪. মুক্তিযুদ্ধ যুদ্ধাপরাধী (২০০৮), প্রীতি প্রকাশন। ২৫. দৃশ্যপট একাত্তর (২০০৮), প্রীতি প্রকাশন। ইতিহাসের বই: ২৬. ভাষা আন্দোলনের ইতিহাস (১৯৯০), প্রীতি প্রকাশন। গল্পের বই: ২৭. পনেরই আগস্টের গল্প (১৯৯০), প্রীতি প্রকাশন। জীবনী: ২৮. আপোষহীন এক সংগ্রামী নেতা (১৯৯২), প্রীতি প্রকাশন। ২৯. নাম তার ফররুখ (১৯৯৭), প্রীতি প্রকাশন। কিশোর প্রবন্ধ: ৩০. নতুন পৃথিবীর স্বপ্ন (২০১৮), প্রফেসারস বুক কর্ণার। ৩১. আলোর পথে এসো (১৯৯৯), প্রীতি প্রকাশন। ঐতিহাসিক রহস্য সিরিজ ক্রুসে (সবগুলো বই প্রকাশিত হয় প্রীতি প্রকাশনী থেকে): ৩২. গাজী সালাউদ্দীনের দুঃসাহসিক অভিযান (১৯৯৭)। ৩৩. সালাউদ্দীন আইযুবীর কমান্ডো অভিযান (১৯৯৭)। ৩৪. সুবাক দুর্গে আক্রমণ (১৯৯৭)। ৩৫. ভয়ংকর ষড়যন্ত্র (১৯৯৭)। ৩৬. ভয়াল রজনী (১৯৯৮)। ৩৭. আবারো সংঘাত (২০০০)। ৩৮. দুর্গ পতন (২০০০)। ৩৯. ফেরাউনের গুপ্তধন (২০০১)। ৪০. উপকূলে সংঘর্ষ (২০০১)। ৪১. সর্প কেল্লার খুনী (২০০১)। ৪২. চারিদিকে চক্রান্ত (২০০২)। ৪৩. গোপন বিদ্রোহী (২০০২)। ৪৪. পাপের ফল (২০০২)। ৪৫. তুমুল লড়াই (২০০২)। ৪৬. উমরু দরবেশ (২০০২)। ৪৭. টার্গেট ফিলিস্তিন (২০০২)। ৪৮. গাদ্দার (২০০৩)। ৪৯. বিষাক্ত ছোবল (২০০৩)। ৫০. খুনী চক্রের আস্তানায় (২০০৩)। ৫১. পাল্টা ধাওয়া (২০০৩)। ৫২. ধাপ্পাবাজ (২০০৪)। ৫৩. হেমসের যোদ্ধা (২০০৪)। ৫৪. ইহুদী কন্যা (২০০৪)। ৫৫. সামনে বৈরুত (২০০৪)। ৫৬. দুর্গম পাহাড় (২০০৪)। ৫৭. ভন্ডপীর (২০০৫)। ৫৮. ছোট বেগম (২০০৬)। ৫৯. রক্তস্রোত (২০০৬)। ৬০. রিচার্ডের নৌবহর (২০০৬)। ৬১. মহাসমর (২০০৬)। উপন্যাস: ৬২. মহাকালের মহানায়ক (২০০৫), প্রীতি প্রকাশন। ৬৩. দুর্গম পথের যাত্রী (২০২০), গার্ডিয়ান পাবলিকেশন্স। গানের বই: ৬৭. জ্যোতির পরাগ (২০০৩)। প্রীতি প্রকাশন।

আসাদ বিন হাফিজ তার বর্ণাঢ্য কর্ম ও সাহিত্যের স্বীকৃতি স্বরূপ অনেক পুরস্কার ও সম্মাননা পেয়েছেন। ১. কলম সেনা পুরস্কার (১৯৯৪); ২. কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশন এম.ইউ আহমেদ পুরস্কার (১৯৯৭); ৩. বাংলাদেশ সাহিত্য সংস্কৃতি সংসদ পুরস্কার (১৯৯৭); ৪. ছড়ার ডাক পদক ও সম্মাননা (২০০৪); ৫. মেলডি শিল্পগোষ্ঠী পদক (২০০৪); ৬. কিশোরকণ্ঠ সাহিত্য পুরস্কার (২০০৪); ৭. গাজীপুর সংস্কৃতি পরিষদ কৃ্তি সংবর্ধনা (২০০৪); ৮. বায়তুশ শরফ আঞ্জুমানে ইত্তেহাদ পুরস্কার ২০০৮; ৯. নাবিক সাহিত্য সংস্কৃতি সংসদ আজীবন সম্মাননা পদক ২০১৬; ১০. জাগরণ থিয়েটার সম্মাননা পুরস্কার ২০১৬; ১১. ওমর ফারুক সম্মাননা স্মারক ২০১৭; ১২. মির্জা আসাদুল্লাহ গালিব সিএনসি পদক ২০১৮; ১৩. ইনফিউশন এওয়ার্ড, মালয়েশিয়া ২০১৯; ১৪. কবি গোলাম মোহাম্মদ সাহিত্য পদক ২০১৯।

তিনি ১. জীবন সদস্যঃ বাঙলা একাডেমী। ২. প্রতিষ্ঠাতা সদস্যঃ বাংলা সাহিত্য পরিষদ। ৩. তালিকাভুক্ত গীতিকারঃ বাংলাদেশ বেতার ও বাংলাদেশ টেলিভিশন। আরো অসংখ্য সাহিত্য ও সামাজিক সংগঠন।

লেখকের সাথে যোগাযোগ মোবাইল: 01717431360, ই-মেইল: asadbinhafiz1958@gmail.com, ফেসবুক: Asad bin hsfiz/আসাদ বিন হাফিজ।