চৈতালী হাওয়ায় ভেসে যায় ক্লান্ত চুম্বন

ভোরে মেঘের ঢেউয়ে
মুছে দিতে হয় রাতের মেঘের কালো মায়া…
একজন প্রণয়িণীর হৃদয় কেঁপে কেঁপে ওঠে
সমস্ত ছায়ারে আকড়ে ধরে
সে একাকী ভালোবাসে!
দুপুরে তপ্ত চৈতালি হাওয়ায় ভেসে যায় ক্লান্ত চুম্বন
তৃষ্ণার্ত যুগল বাহুডোর
নদী হারিয়ে যায় নিরুদ্দেশে
অতীতের ক্ষত বহমান কালের গ্রহে!

রাত মেঘের ডানায় চাঁদনি আলেয়ায়
দেহের ছোঁয়ায় সুখ খোঁজে
হিমেল হাওয়ায় এক এক করে পাতার মতন ঝরে যায়

তারপর… নির্জন পৃথিবী এবং তুমি আমি রূপকথার
বসন্ত রোসনাই
খুব কাছে একটু দূরে কিছু কিছু আকাঙ্ক্ষা
তারপর শীতল মৃত্যু
পৃথিবী ফুরায় ধীরে…
…………………………………………..

স্যাটিক সময়

যদি তোমায় ডেকে যায় কেউ
মধ্যরাতের আলিঙ্গনে ভেদ করে ফিরতে পারবে কি?
সময় স্ট্যাটিক না জেনো
তোমায় ভালোবাসা আমার নিত্য অভ্যাস মেনো।
আবার যদি বসন্ত আসে বৈরি বাতাসে উড়িয়ে দিয়ো সোনা রোদ
কালের ধারা এমনি তো হয়
তোমায় ভোলার শাস্তি পেতে হয় রোজ।
…………………………………………..

নতুন ব্যথা তুই

নির্রথক এ আর্তনাদ বালিশ ভিজছে রোজ
অগোচরে হেসে ব্যাথারে ছুঁই
রোজ এখানে ব্যথার জন্ম
এখন নতুন ব্যথা তুই!
…………………………………………..

তুমিময় বিভোর সময়

একটা প্রেম আমার
একটা ভিন্ন পৃথিবী
একটা আলতো ছোঁয়া
রচিত হয় এক মহাকাব্যের গীতি

ওই যে রোদ্দুর… আলোকিত নীল আকাশ
মেঘ বিকেল… সবটাই মায়ায় মাখানো তুমিময় সময় বিভোর!

এই যে সময়… পাওয়া না পাওয়ায় মুড়ি দিয়ে যাচ্ছে কালের স্রোতে
তবু ভালোবাসা, তবু কাছে আসার চোরাকাঁটা স্বপ্ন বুনন করছে!
…………………………………………..

অতৃপ্ত ইতিহাস

নগরীর পথে পথে আর দূর নীলিমায় লেগে থাকে
প্রেমের চোরাবালির অতৃপ্ত ইতিহাস!
অনন্তকাল স্থায়ী প্রেম করুন সুরে মৃত্যুকে আলিঙ্গন করে।
পৃথিবীতে বঞ্চিত প্রেম মাটির সাথে মিশে যায়!
…………………………………………..

তুমি এবং সিক্ত ঠোট

তোমার সিক্ত ঠোঁটের তুরুপের রং
আমায় ডাকে… এক অমোঘ হাতছানি!
তোমার দুষ্টু হাসির খেয়ালিপনা
আমায় ভাবায়…
যেন দূর্বোদ্ধ উপন্যাসের প্রহসন
শেষ পৃষ্ঠায় জন্ম নেয় নতুন কোন তুমিআমি গল্প…
…………………………………………..

চেনা ব্যথা

চেনা মানুষ অচেনা হয়ে গেলে,
নিকট যখন দূর হয়ে যায়
ব্যথারা হাপিত্যেশ করে
দুঃখরা কষ্টে কাননে ধায়!!
…………………………………………..

নির্বাক নিরবতা

হৃদয়ের বাহুডোরে আগুনের পরশমণি
রাত্রির উন্মাদনায় ছুঁতে চায় বেঘোর ইতিহাস

আচ্ছা প্রিয়তম
একটা দহনে… নৈশব্দের অতলে
এতটা এতটাই আমি একলা
তুমি আসোনি

কি নির্বাক নিরবতা
বিমুঢ়তা অনাবিল
আমার দহন কালের কবিতা।
…………………………………………..

বসন্ত তুমি

এই তুমি এলে
জীবন বসন্ত রং পেল
মেঘের রংয়ে জলের রংয়ে
আমার হৃদয় পরশ বুলালো!