৩১.
বৈশাখের প্রথম জলে।
আশুধান দ্বিগুণ ফলে।।
খনায় বলে শুন ভাই।
তুলায় তুলা অধিক পাই।।

ব্যাখ্যা:
প্রথমে বৈশাখে যদি বৃষ্টি ভাল হয়।
প্রচুর আউস ধান জন্মিবে নিশ্চয়।।
কার্তিকেতে বৃষ্টি হইলে তুলা ভাল হবে।
খনার উক্তি কভু আর না ভাবিবে।।

৩২.
কোদালে মান তিলে হাল।
কাতেনকাকার মাসেকাল।।
ছায়ের লাউ, উঠানে ঝাল।
কর বাপু চাষার ছাওয়াল।।

ব্যাখ্যা:
মান গাছ করিতে যদ্যপি সাধ থাকে।
কোদাল পাড়িয়া পাট কর সে জমিতে।।
জন্মিবে তিল হল-চালনা না হলে।
অতএব তার পাট করহ লাঙ্গলে।।
শ্বেত তিল আশ্বিন কার্তিকে বুনিবেক।
মাঘ ফাল্গুনে কৃষ্ণ তিল ছড়াবে।।
বাঁশবনে লাউ উঠানেতে ঝাল।
জনমে উত্তম ফল জেনো চিরকাল।।

৩৩.
সরষে ঘন, পাতলা রাই।
নেঙ্গে নেঙ্গে কাপাস যাই।।
কাপাস বলে, কোষ্ঠা ভানু।
জ্ঞাতিপানি না যেন পাই।।

ব্যাখ্যা:
সর্ষপ বুনিতে হবে খুব ঘন ঘন।
রাই কিন্তু ফাঁক ফাঁক বুনা চাই জেনো।।
কার্পাস এমন ভাবে বপন করিবে।
দাঁড়াইয়া যেন তাহা তুলিতে পারিবে।।
ডিঙ্গাতে পারে যেন আবশ্যক মতে।
পাট ও কার্পাস নাহি বুনো এক ক্ষেতে।।
কারণ কোষ্টার জল লাগিলে কাপাস।
আর না রবে তো আশ।।

৩৪.
বুধ রাজা, শুক্র তার মন্ত্রী যদি হয়।
শস্য হবে ক্ষেত্রে পূরা নাহিক সংশয়।।

ব্যাখ্যা:
যে বৎসর বুধ রাজা, শুক্র মন্ত্রী হবে।
সে বৎসর বসুন্ধরা শস্যপূর্ণা হবে।।

৩৫.
খাটে খাটায় লাভের গতি।
তার অর্ধেক কাঁধে ছাতি।।
ঘরে বসে পুছে বাত।
তার ঘরে হা ভাত হা ভাত।।

৩৬.
মাছের জলে লাউ বাড়ে।
ধেনো জমিতে ঝাল বাড়ে।।

ব্যাখ্যা:
লাউগাছে মাছ ধোয়া জল উপকারী।
ঝাল গাছে ধান পচা উপকারী।।

৩৭.
যে বার গুটিকাপাত সাগর-তীরেতে।
সৰ্ব্বদা মঙ্গল হয় কহে জ্যোতিষেতে।।
নানা শস্যে পরিপূর্ণ বসুন্ধরা হয়।
খনা কহে মিহিরকে নাহিক সংশয়।।

ব্যাখ্যা:
হইলে গুটিকাপাত সমুদ্রের তীরে।
একত শস্য হয় যে ধরায় নাহি ধরে।।
অতএব এইরূপে হবে যে বৎসর।
শষ্যপূর্ণ বসুন্ধরা রবে নিরন্তর।।

৩৮.
বাঁশ বনে বুনলে আলু।
আলু হয় গাছ বেড়ালু।।

ব্যাখ্যা:
বাঁশবন ধারে যদি আলু পোঁতা যায়।
আলু খুব বাড়ে তার গাছ তেজ পায়।।
বড় আলু খেতে চাও পোঁত বাঁশ বনে।
রাখহ বিশ্বাস ভাই খনার বচনে।।

৩৯.
চাল ভরা কুমড়া পাতা
লক্ষ্মী বলেন আমি তথা।।

ব্যাখ্যা:
লাউ কুমড়ার গাছ বাড়ীতে যাহার।
অভাব তরকারীর না রবে তাহার।।
অধিকন্তু বেচিলে দু’পয়সা পায়।
সচ্ছল সংসার তার সুখে দিন যায়।।

৪০.
পান পেতে শ্রাবণে।
খেয়ে না ফুরোয় রাবণে।।

ব্যাখ্যা:
রোপিলে শ্রাবণে পান এত পান ধরে।
রাক্ষসেরা খেলে নাহি ফুরাইতে পারে।।