মুঠি মুঠি সোনারোদ

দিন দিন কাটে দিন, দিন থাকে উড়তে
চিনচিন ব্যথা বুকে, বুক থাকে পুড়তে
খান খান ভেঙে পড়ে সাধে গড়া সৌধ
রিমঝিম ধারাজলে মাঠ হয় ধৌত।
নিমঝাড় ছিপঝাড় ঝোপঝাড়ে রোদ্দুর,
ছিমছাম পাখনায় পাখি ওড়ে কদ্দুর ?
দ্যাখ দ্যাখ চেয়ে দ্যাখ – মেঘে ওই হারালো
চুপচাপ রূপকথা-রাজ্যে পা বাড়ালো।
দূর দূর বহুদূর ছোটে ছিপ নৌকো
গুনগুন ভোমরার প্রাণখাঁচা চৌকো
টান টান পাখনায় রোদ মাখে হংসী
তিরতির বয়ে চলে নদী, নাম বংশী।
ঝির ঝির বাতাসের শিরশির কাঁপনে
শীত শীত ঝিমধরা দিনগুলো যাপনে
উড়ি উড়ি করে পরী, উড়ে যেতে চায় সে
কুঁড়ি কুঁড়ি শিশুদের টানে থেকে যায় যে !
ঝুড়ি ঝুড়ি রূপকথা বুড়ি দাদী বলছে
ঝিক ঝিক রেলগাড়ি দ্রুত ছুটে চলছে
সোনা সোনা ধানমুখ মাঠ ভ’রে হাসছে
মুঠি মুঠি সোনারোদে সুখী দিন আসছে।।
…………………………………………..

দরপত্র

দুঃখগুলো বিক্রি হবে, নিলাম হবে, নিলাম
কিনতে এসো জলের দরে সব বিকিয়ে দিলাম,
নিলাম হবে, নিলাম।
কষ্টগুলো সাজিয়ে রাখা পাতার পরে পাতায়
স্বস্তিগুলো হারিয়ে লিখি বেদনা-নীল খাতায়
পাতার পরে পাতায়।
স্বপ্নগুলো কাফনমোড়া, কবর হবে, কবর
দু’চোখ ভ’রে আকাশ এনো, পেলেই যদি খবর
কবর হবে, কবর।
ঠাঁই হলো না বুকের ঘরে, ঠাঁই ছিলো না জলেও
ঝড় বাতাসে একলা হাঁটা, একলা কোলাহলেও
ঠাই ছিলো না জলেও।
দুঃখগুলো বিক্রি হবে, নিলাম হবে নিলাম
কিনতে এসো জলের দরে সব বিকিয়ে দিলাম।।
…………………………………………..

বিস্মরণ চাই

জাগরণ মানে স্মৃতি
স্মৃতি মানে তুমি
ঘুম মানে স্বপ্ন, স্বপ্ন মানে তুমি।
স্মৃতি নয় গতি নয়
ঘুম নয় জাগরণ নয়,
কোনো কিছুতেই আর
মিথ্যে স্বপ্ন নয়,
আমি শুধু চিরতরে বিস্মরণ চাই।