মন পবনের নাও : তারপরও পাল ওড়ে

তারপরও আমাদের জীবনের বিরাট অংশ জুড়ে থাকলো নাওয়ের প্রভাব। আমাদের মালামাল কিংবা মানুষ। এক স্থান থেকে অন্যখানে বয়ে নিতে লাগে নাও।

আজো দেশের হাট-বাজার, শহর-গঞ্জ কিংবা শিল্প গড়ে ওঠে নদীর ধারে। নৌকায় করে মালামাল বয়ে নেয়া সহজ। এ জন্যই নদীর পাড়ে সব আয়োজন।

পালের নাওয়ের পাশাপার্শি অনেক আগেই এদেশে চালু হয়েছে কলের জাহাজ। গড়ে উঠেছে লঞ্চ আর স্টীমার তৈরির কারখানা। ঢাকার জাহাজ শিল্পের ঐতিহ্যের রেশ ধরে নারায়ণগঞ্জের ডকইয়ার্ডে এখন বড় বড় জাহাজ তৈরি হয়; মেরামত হয়। রাজধানী ঢাকার বুড়িগঙ্গার তীর ঘেঁষে সদরঘাটের অপর পাড়ে গড়ে উঠেছে জাহাজ নির্মাণ শিল্প। দেশী কারিগররা আলিশান সব জাহাজ তৈরি করছেন। নদী খননের জন্য ভারি ড্রেজারও তারা তৈরি করতে সক্ষম। তবু কিন্তু নৌপথের আশি ভাগ মাল এখনো বয়ে নেয় পাল তোলা নাও।
নাও ছাইড়া দে
পাল উড়াউয়া দে
ছলছলাইয়া চলুক নৌকা
মাঝ দইরাতে।