কাগজ থেকে কাগজীটোলা : এলো নতুন সদাগর

তারপর একদিন পালতোলা জাহাজে করে এক দল লোক আসলেন চীনে। আরব দেশের লোক তারা। আমাদের নবীর সাহাবী তারা।

সেই দলের নেতা ছিলেন হযরত আবু ওয়াক্কাস রা.। তিনি ছিলেন আমাদের প্রিয় নবী হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সালামের মামা।

ইথিওপিয়ার সম্রাট নাজ্জাশীর দেয়া পাল তোলা দু’খানি জাহাজ নিয়ে রওনা হন তাঁরা। বাংলাদেশ হয়ে তাঁরা চীনে পৌঁছেছিলেন ইসলাম প্রচারে জন্য। হযরত আবু ওয়াক্কাস রা. চীনের ক্যান্টনে ইন্তেকাল করেন। এখনো সেখানে তাঁর কবর এবং একটি বিখ্যাত মসজিদ রয়েছে।

হযরত আবু ওয়াক্কাস রা. থেকে শুরু। তারপর চীনে গমন করেন আরো অনেক ইসলাম প্রচারক। এই মুসলমানরাই প্রথম পরিচিত হন চীন দেশের কাগজের সাথে।

চীনে তাঁরা ইসলাম প্রচার করেন। তাঁদের ডাকে সাড়া দেন বহু লোক। ঈমান আনেন আল্লাহর প্রতি।

এই নও-মুসলিমদের কাছে আরবরা শিখলেন কাগজ তৈরির কৌশল। সেই চমৎকার অভিজ্ঞতা তাঁরা নিয়ে এলেন চীনের বাইরে। এভাবেই কাগজ পরিচিত হয় চীন দেশের বাইরে। ইসলাম প্রচারক মুসলমানরাই চীনের বাইরে কাগজ তৈরি প্রথম কারিগর।