ঈমানের বদলা

ঈমানের বদলা
ঈমানেই হয়
ভাগাভাগি ঈমান
মুমিনের নয়
সত্যিকারের ঈমানদারের
ঈমানেই পরিচয়।।

ঈমান যদি মুমিনের দীলে
পরিপূর্ণতা নাই-বা মিলে
সে ঈমান শুধু কমজুরি হয়
সত্যের পথে আসে না বিজয়
তাগুতের হাত গুড়িয়ে দিতে
হয় না তো নির্ভয়।।

কোরানের পথে হাতে হাত রেখে
এসো রাসূল প্রেমের সুধা মেখে
ঈমানী বলে বলীয়ান হই
আমরা সবে এক হয়ে রই
বাতিলেরে আজ বিলীন করে
সত্যের করি জয়।।
……………………………………………

প্রভু দয়াময়

যার নামে সূর্য ওঠে, নদী বয়ে যায়
যার নামে পাখি গায় ঐ নীলিমায়
সে যে আমার প্রিয় অতি প্রভু দয়াময়।।

ভোরের আলো স্নিগ্ধ কোমল তারি মহিমায়
ফুলকলিরা চোখ মেলে ঐ সুরভি ছড়ায়
ঝিরিঝিরি বাতাসের দোল যার হুকুমে বয় –
সে যে আমার প্রিয় অতি প্রভু দয়াময়।।

তিনি মহান, মহামহিম, সর্বশক্তিমান
লা-শরীক আল্লাহ তিনি, সবি তারি দান

আকাশ ফুঁড়ে বৃষ্টি নামে রহমো ধারা
ফুল ফসলে প্রাণের জোয়ার তার ইশারা
সাগর বুকে ঢেউয়ের নাচন যার হুকুমে হয় –
সে যে আমার প্রিয় অতি প্রভু দয়াময়।।
……………………………………………

কার ইশারায়

ভোর বিহানে পাখির গানে
প্রাণ জুড়িয়ে যায়
ঊষা রবি মোহময়ী
রূপ ছড়িয়ে যায়
বলো, কার ইশারায়।।

পাহাড় গায়ে ঝরনার গান
নদীর জলে সুমধুর তান
সাগর বুকে উর্মিমালা
গাংচিলেরি প্রাণের মেলা
গোধূলিতে আবীর মাখে
ঐ আকাশের গায়,
বলো, কার ইশারায়।।

দিনের শেষে রাত নিশীথে
কলিরা ফোটে মন খুশিতে
তারারা যেনো আলোর খেয়া
রাতের কালোয় রূপোর ছোঁয়া
চোখ জুড়ানো এমন সাজে
কে সাজালো হায়,
বলো, কার ইশারায়।।

প্রজাপতির ডানায় ডানায়
আলপনা রঙ শুধুই মানায়
দোয়েল, শ্যামা, ঘুঘুর ডাকে
তাঁর নামেতেই পাই গো তাঁকে
তিনি আল্লাহ, মালিক মাওলা
গাফুর দয়াময়,
সবি তাঁর ইশারায়।।
……………………………………………

রিমঝিম

রিমঝিম ঘন বরষায়
ঝর ঝর বৃষ্টি ঝরে
ঘুম ঘুম তন্দ্রালুতায়
প্রভু, তোমাকে মনে পড়ে।।

বৃষ্টির সুরে সুরে
মনো মোর হয় উতলা
আকাশের কান্না দেখে
কাঁদি আমি একেলা
এমনো ঘন বরিষণে
প্রভু, তোমাকে মনে পড়ে।।

বরষার কদম্ব, কেতকীর ঘ্রাণে
মোহিনী সুখ আহা, জাগায় এ প্রাণে
হৃদয়ের বীণা তারে জলে ভেজা গান
তোমারি দয়া প্রভু, তোমারি যে দান।।

ঐ দূর মিনার হতে
শুনি কী যে সুমধুর সুর
আজানের আহবানে
মুমিনের জাগে অন্তর
সিজদায় আঁখিজল ঝরে
প্রভু, তোমাকে মনে পড়ে।।
……………………………………………

এ অন্তর পুড়ে ছাই

এ অন্তর পুড়ে ছাই
মুসলিম শোনো ভাই
রাসূলের অপমানে
প্রতিশোধ নেয়া চাই।।

বাতিলের কালো হাত
নেই তার জাত পাত
টুটি চেপে ধরা চাই ওদের,
বিশ্বের সেরা যিনি
নবীদের শিরোমণি
অপমানে ক্ষমা নেই তোদের।
আমাদের কলিজায়
যন্ত্রণা বয়ে যায় –
কান্নার সময় তো নাই।।

ওরা কাফের, ইহুদি-নাসারা
নাস্তিক, বজ্জাত
মুসলিম নিধনে একজোট সবে
মিলায় হাতে হাত

আল্লাহর ধরা বড়
গদি হবে নড়বড়
সেইদিন বেশি দূরে নয়,
বিজয়ের হাতছানি
রহমের রৌশনি
জ্বলিবে জ্বলিবে নিশ্চয়।
দেশে দেশে মুসলিম
বিভেদ ভুলার দিন –
সময়ের দাবি তো এটাই।।
……………………………………………

কী করে এমন হলো

কী করে এমন হলো বলো
কী করে এমন হয়
মরণেও হাসে যে হৃদয় –
নির্ভীক, নির্ভয় ।।
কী করে এমন হলো বলো
কী করে এমন হয়…

ঈমানের বল কতটুকু হলে
নির্ভার থাকে মন
কত হিম্মত বুকে ধরিলে
করে মৃত্যুরে আবাহন –
আল্লাহর রাহে বিলিয়ে জীবন
তারা মৃত্যুঞ্জয় ।।
কী করে এমন হলো বলো
কী করে এমন হয়…

নিজের জীবন কোরবান করে
আগামীরে দেয় পথ
সাহসী সেনারা দৃঢ় পদভারে
ছুটিবে ছলাৎ ছৎ –
শহীদের মান রাখিবেই তারা
সত্যের হবে জয় ।।
কী করে এমন হলো বলো
কী করে এমন হয়…