হোমার Homer গ্রিক ভাষায় রচিত ইলিয়াড এবং ওডিসি নামক মহাকাব্যের রচয়িতা হোমার। তার জন্মকাল নিয়ে মতভেদ আছে। হেরোডোটাসের মতে, হোমার ৪৮৬-৪২৫ খ্রিষ্টপূর্বাব্দের লোক ছিলেন। অনেকে মনে করেন, হোমার ট্রয় যুদ্ধের সমসাময়িক কালের লোক ছিলেন।

আবার অনেকে মনে করেন, তিনি খ্রিষ্টপূর্ব ৮৫০ অব্দের কাছাকাছি সময়ে জন্মগ্রহণ করেছিলেন। এই বিচারে, তিনি অপর গ্রিক কবি হেসিওড-কে হোমারের কিছু আগের কবি হিসবে বিবেচনা করা হয়। উল্লেখ্য ইলিয়াড ও ওডিসির মহাকাব্যের মাধ্যমেই গ্রিক তথা ইউরোপিয় সাহিত্যের সূত্রপাত হয়েছে বলে প্লেটো এবং এ্যারিস্টোটল বহুবার তাঁদের রচনায় উল্লেখ করেছেন। এই কারণে হোমারকেই আদিকবি হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছেন।

হোমারের পিতা ছিলেন একজন চারণকবি। উত্তরাধিকার সূত্রে তিনিও এই পথ বেছে নেন। তিনি কবি হিসাবে এবং গায়ক হিসাবে সুপ্রসিদ্ধ ছিলেন। গ্রিসের বিভিন্ন অঞ্চলে তিনি গান গেয়ে বেড়াতেন। ক্রমে ক্রমে চারণকবি এবং গায়ক হিসেবে গ্রিসে বিশেষ স্থান করে নেন। হোমারের মৃত্যুর পর তাঁর কাব্যগাঁধা স্থানীয় লোকেরা পরিবেশন করতো। এই সময়ে হোমারের কাব্য পরিবেশনে ধারাবাহিকতা ছিল না।

আনুমানিক খ্রিষ্টপূর্ব ২৫০ অব্দে সামোথেসের এ্যারিস্টার্কাস হোমারের রচিত কাব্যাংশগুলোকে সংগ্রহ করে একটি ধারাবাহিক রূপ দেন। পরে, সমগ্র সংকলনকে একত্রিত করে দুটি ভাগে ভাগ করেন। এর প্রথম ভাগের নামকরণ করেন ইলির্য়ড এবং দ্বিতীয় ভাগের নামকরণ করেন ওডিসি।